PM Mudra Yojana

INB GURU

PM Mudra Yojana: প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনায় আবেদন করুন এবং সরকার আপনার ব্যবসার ভার বহন করবে।

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বসবাসকারী যুবক-যুবতীদের নিজস্ব ব্যবসা তৈরিতে সাহায্য করার জন্য রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকার বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। এই প্রকল্পগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য প্রকল্প হলো প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা (PM Mudra Yojana)। এই প্রকল্পের অধীনে সমস্ত যুবক-যুবতীরা যারা নিজের ব্যবসা শুরু করতে চান তারা ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ পেতে পারেন অর্থাৎ ব্যবসার মূলধনের একটি অংশ কেন্দ্রীয় সরকার প্রদান করে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই যুবক-যুবতীরা এই প্রকল্পের সম্পর্কে সঠিকভাবে না জানার কারণে প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠেছে। তাই আমরা আজকের এই প্রতিবেদনে এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর নিয়ে হাজির হয়েছি। তাই আপনাকে প্রতিবেদনটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত অবশ্যই পড়তে হবে।

- Advertisement -

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার অধীনে কি কি সুবিধা পাওয়া যাবে?

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার অধীনে নতুন ব্যবসা শুরু করার জন্য যুবক-যুবতীদের তিন ধরনের ঋণ বা লোন প্রদান করা হয়। এই তিন ধরনের ঋণগুলি হলো শিশু ঋণ, কিশোর ঋণ এবং তরুণ ঋণ। যে সমস্ত যুবক-যুবতীরা নতুন ব্যবসা শুরু করেছেন তারা শিশু ঋণের আওতায় ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ পাবেন। এই ক্ষেত্রে ঋণগ্রহীতাকে বার্ষিক ১০ শতাংশ থেকে ১২ শতাংশ হারে সুদ দিতে হবে এবং ঋণ পরিশোধের সময়কাল সর্বোচ্চ ৫ বছর পাবেন।

- Advertisement -

আর কিশোর ঋণের আওতায় ৫০ হাজার টাকা থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ পাবেন। কিন্তু যেসমস্ত যুবক-যুবতীরা নতুন ব্যবসা শুরু করেছেন তারা এই ঋণের জন্য আবেদন করতে পারবেন না, শুধুমাত্র যাদের ব্যবসা ইতিমধ্যে প্রতিষ্ঠিত কিন্তু এখনও পর্যন্ত সুনাম অর্জন করতে পারেনি, শুধুমাত্র তারাই কিশোর ঋণের আওতায় ঋণের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এছাড়া ঋণ প্রদানের জন্য ঋণগ্রহীতার ব্যবসায়িক পরিকল্পনা ও ক্রেডিট রেকর্ড যাচাই করা হবে। তবে এক্ষেত্রে কতটা সুদের হার দিতে হবে তা নির্ভর করে আপনি যে প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নিচ্ছেন তার উপরে। এমনকি এক্ষেত্রে ঋণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ঋণ পরিশোধের সময়সীমা নির্ধারিত থাকে।

বাকি রইলো তরুণ ঋণ, এই ঋণের আওতায় যেকোনো ব্যবসায়ী ৫ লাখ টাকা থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ পেতে পারেন। যেসমস্ত ব্যবসায়ী তাদের ব্যবসা ইতিমধ্যে সুপ্রতিষ্ঠিত এবং যারা দেশের বিভিন্ন এলাকায় তাদের ব্যবসা সম্প্রসারণ করতে চাইছে, কেবলমাত্র তারাই এই ঋণের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই ঋণের আওতায় সর্বোচ্চ ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ পাবেন। এক্ষেত্রে কিশোর ঋণের ন্যায় সুদের হার এবং ঋণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ঋণ পরিশোধের সময়সীমা নির্ধারিত থাকে।

এই সমস্ত কথাগুলি বলে রাখি ভালো যে, প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার অধীনে ঋণ শোধের সময়সীমা ৩ বছর থেকে ৫ বছর হয়ে থাকে। এমনটি ঋণ নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো রকম প্রসেসিং ফি দিতে হয় না অর্থাৎ প্রয়োজন হয় না। এই যোজনার সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় হলো আপনি পাবলিক সেক্টর ব্যাঙ্ক থেকে শুরু করে বেসরকারি ব্যাংক, আঞ্চলিক খাত থেকে গ্রামীণ ব্যাংক, রাজ্য পরিচালিত সমবায় ব্যাঙ্ক, মাইক্রো ফাইন্যান্স সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এবং ব্যাঙ্ক ছাড়া অন্য আর্থিক সংস্থাগুলি থেকেও প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার অধীনে ঋণ পেতে পারেন।

আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট

  • আবেদনকারীর ফটো আইডি প্রুফ,
  • স্থায়ী বাসিন্দার প্রমাণপত্র,
  • পাসপোর্ট সাইজের ২ কপি ফটো,
  • জাতি শংসাপত্র,
  • মেশিন সহ যে সমস্ত জিনিস কিনতে হবে তার কোটেশন,
  • মেশিনের বিবরণ / মেশিনের নাম / সাপ্লাইয়ারের নাম,
  • পরিচয় পত্র / ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা (লাইসেন্স / রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট সহ অন্যান্য ডকুমেন্টস),
  • এই নথিগুলির ছাড়াও কিশোর এবং তরুণ ঋণের ক্ষেত্রে আবেদনকারীর অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট, ইনকাম ট্যাক্স সহ বিগত দুই বছরের ব্যালেন্স শিট (২ লক্ষ টাকার থেকে বেশি আমানতের ঋণের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য), চলতি বছরের বিক্রয় রিপোর্ট, প্রোজেক্ট রিপোর্ট, ব্যবসায়িক অংশীদারের ডকুমেন্টস (যদি থাকে) যথাযথভাবে জমা দিতে হবে।

SBI Account KYC Update Online: বাড়িতে বসে KYC নিজেই আপডেট করুন, জেনে নিন সম্পূর্ণ অনলাইন প্রক্রিয়া

PM Mudra Yojana এর অধীনে ঋণের জন্য আবেদন করবেন কিভাবে?

  • প্রথমে আপনাকে এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://www.mudra.org.in/ -এর হোম পেজে যেতে হবে,
  • হোম পেজে আসার পর একটু নিচের দিকে থাকা UdyamiMitra অপশনে ক্লিক করতে হবে,
  • এরপর নতুন একটি ওয়েবসাইট খুলে আসবে,
  • এখানে Apply Now অপশনে ক্লিক করতে হবে,
  • এরপর New entrepreneur/ Existing Entrepreneur/ Self employed professional অপশনগুলোর মধ্যে যেকোনো একটি সিলেক্ট করতে হবে,
  • এরপর আবেদনকারীর নাম, মোবাইল নম্বর, ইমেইল আইডি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হবে,
  • এরপর আপনার পার্সোনাল এবং প্রফেশনাল বিবরণ লিখতে হবে,
  • প্রজেক্ট প্রপোজাল বানাতে আপনার যদি কোনো সাহায্যের প্রয়োজন হয় তাহলে আপনি আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী যেকোনো হ্যান্ড হোল্ডিং এজেন্সির সাহায্য নিতে পারেন নতুবা Loan Application Canter এবং Apply Now অপশনে ক্লিক করতে হবে,
  • এরপর শিশু ঋণ, কিশোর ঋণ নাকি তরুণ ঋণ নিতে চান তা সিলেক্ট করতে হবে,
  • এরপর নিজের ব্যবসা সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য পূরণ করতে হবে,
  • এরপর প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস আপলোড করতে হবে,
  • সবশেষে Submit বোতামে ক্লিক করলেই আবেদনপত্রটি সফলভাবে জমা হয়ে যাবে এবং আপনাকে একটি অ্যাপ্লিকেশন নম্বর দেওয়া হবে এটি সুরক্ষিত রাখুন, ভবিষ্যতে এটি কাজে লাগবে।

Important Links 

Official WebsiteClick Here
Direct LinkClick Here

🔔 বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্প, চাকরি, শিক্ষা ও স্কলারশিপ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ আপডেট মিস করতে না চাইলে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপটেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হোন –

Share.

Leave a Comment